হবিগঞ্জের চার শিশু হত্যার আসামি বন্দুকযুদ্ধে নিহত

ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০১৬
৩০৫ Views

হবিগঞ্জের বাহুবলে চার শিশু হত্যা মামলার অন্যতম আসামি বাচ্চু মিয়া র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুক যুদ্ধে নিহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার ভোর রাত সাড়ে ৪টার দিকে চুনারুঘাট দেওরগাছ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

সিলেট র‌্যাব ৯ জানায়, ভোর ৪টার দিকে হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলার দেউরগাছ এলাকায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালানো হয়। এ সময় বাচ্চুসহ তার সহযোগীদের সঙ্গে র‌্যাবের গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটে। এতে বাচ্চু গুরুতর আহত হয়। আহতাবস্থায় তাকে চুনারুঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।পরে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

এদিকে সিলেটের বিশ্বনাথ এলকা থেকে চার শিশু হত্যা মামলায় শাহেদ নামের অন্যতম আরেক আসামিকে গ্রেপ্তারর করে র‌্যাব। তাকে পুলিশের কাছে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে।

র‌্যাব আরো জনায়, ওই ঘটনার পর থেকেই র‌্যাব আসামিদের ধরতে অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে। অভিযান অব্যাহত আছে।

এর আগে ১৯ ফেব্রুয়ারি হবিগঞ্জ পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার জয়দেব কুমার ভদ্র কিলিং মিশনে অংশ নেওয়া রুবেল মিয়ার (১৭) স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি তুলে ধরে বলেন, গ্রাম পঞ্চায়েত আব্দুল আলী ওরফে বাগল মিয়ার নির্দেশে এ কিলিং মিশনে অংশ নেয় ৬ জনের একটি দল।

আব্দুল আলী ওরফে বাগল মিয়ার ছেলে রুবেল মিয়া (১৭), একই গ্রামের আরজু মিয়া (২০) ও সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালক বাচ্চু মিয়াসহ (২৫) মোট ৬ জন তাদের গ্রামের চার শিশুকে হত্যা করে।

নিহত শিশুরা হলো- বাহুবল উপজেলার সুন্দ্রাটিকি গ্রামের ওয়াহিদ মিয়ার ছেলে সুন্দ্রাটিকি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র জাকারিয়া শুভ (৮), আবদাল মিয়ার ছেলে প্রথম শ্রেণির ছাত্র মনির মিয়া (৭), আব্দুল আজিজের ছেলে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র তাজেল মিয়া (১০) ও সুন্দ্রাটিকি আনওয়ারুল উলুম ইসলামিয়া মাদ্রাসার নুরানী প্রথম শ্রেণীর ছাত্র আব্দুল কাদিরের ছেলে ইসমাইল মিয়া (১০)। তাদের মধ্যে শুভ, মনির ও তাজেল একে অপরের চাচাতো ভাই।

Leave A Comment